আপনি যদি দই খান, তাহলে দই খেলে শরীরের কি লাভ হয় ও কি ক্ষতি হয় জেনে নিন / Curd benefits in Bengali | Ayurvedic-Care |

আপনি যদি দই খান, তাহলে দই খেলে শরীরের কি লাভ হয় ও কি ক্ষতি হয় জেনে নিন / Curd benefits in Bengali :


Curd Benifits

দই আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য খুবই লাভ দায়ক। প্রতিদিন দই সেবন করলে পাচন শক্তি বৃদ্ধি পায়। দইতে প্রচুর ক্যালসিয়াম প্রোটিন ভিটামিন পাওয়া যায়। আমাদের ভারতীয় সংস্কৃতিতে প্রাচীনকাল থেকেই দই এর গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকার দৃষ্টান্ত পাওয়া যায়। যে কোন শুভ অনুষ্ঠান পূজা-পার্বণ বিবাহ ইত্যাদি ক্ষেত্রে দইয়ের ব্যবহার করা হয়।
আজকে আমরা জেনে নেব যে দই খেলে আমাদের শরীরে কি কি লাভ হয় কি কি ধরনের রোগ প্রতিরোধ করা যায়।


শরীরের স্থূলতা / ওজন কম করার জন্য দই সেবন করুন- Curd benefits for obesity :


আমরা সবাই জানি যে শরীরের অতিরিক্ত ওজন বা স্থূলতা শরীরে অনেক রকমের রোগ সৃষ্টি করে। অর্থাৎ যদি শরীরের ওজন বা স্থূলতা আমরা কমাতে পারি তাহলে অনেক ধরনের রোগ অসুখ বিসুখ থেকে বাঁচা যায়। দই আমাদের শরীরে কোলেস্টেরলের মাত্রা কমাতে সাহায্য করে, যার ফলে রক্তপ্রবাহের উন্নতি ঘটে এবং শরীরে অতিরিক্ত চর্বি জমতে পারে না। এছাড়াও দই এর ব্যবহার করলে ব্লাড প্রেশারের মত সমস্যা থেকেও মুক্তি পাওয়া যায়।


হার্টের রোগের জন্য দই খুবই লাভকারী / Curd benefits for heart disease :


দই খাওয়ার ফলে কোলেস্টেরল এর মাত্রা বৃদ্ধি প্রাপ্ত হয় না এবং হার্টবিট সঠিকভাবে চলতে থাকে। দইয়ের ব্যবহার করলে হার্টের রোগ উচ্চ রক্তচাপ এবং কিডনির অসুখ থেকে দূরে থাকা সম্ভব।


পেট গরম হলে দই এর ব্যবহার করুন / Curt keeps cool your body :


পেটের কিছু সমস্যার সমাধানের জন্য দই অমৃত বলে গণ্য করা হয়। পেটে গরম বা জ্বালা হলে দই থেকে তৈরি লস্যি পান করলে আরাম পাওয়া যায়। এছাড়াও যদি কোন ব্যক্তির পাতলা পায়খানা হয় তাহলে ভাতের সাথে দই সেবন করলে উপকার পাওয়া যায়।


চুল ভালো রাখতে দই সেবন করুন / Curd benefits for hair :


যদি দই এবং মুলতানী মাটি একসাথে মিলিয়ে মাথায় লাগানো যায় তাহলে চুল খুবই মোলায়েম হয়ে ওঠে। এর সাথে সাথে চুল ঝরে পড়ার সমস্যা থেকেও মুক্তি পাওয়া যায়। দইয়ের ব্যবহার করলে চুলের রুক্ষতা ও শুষ্কতাতা দূর হয় এবং চুল আর্দ্র হয়ে ওঠে। এর জন্য আপনি স্নান করার সময় মাথায় ও চুলে দই মালিশ করতে পারেন।


ত্বক ভালো রাখতে নিয়মিত দই সেবন করুন / Curd benefits for skin :


ত্বকের উজ্জ্বলতা ফিরিয়ে আনার জন্য দই ব্যবহার করা যেতে পারে। দই তে উপস্থিত ভিটামিন এ ফসফরাস এবং জিংক ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়াতে সাহায্য করে। দই এবং সামান্য পরিমাণ বেসন একসাথে মিলিয়ে পেস্ট তৈরি করুন। 10 মিনিটের জন্য মুখের উপর লাগিয়ে রাখুন। তারপর জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এর ফলে আপনার মুখ পরিষ্কার হয়ে উঠবে, মুখের ওপর থেকে ডেট সেলস দূর হবে, আপনার মুখের ত্বক তরতাজা হয়ে উঠবে। এছাড়া যাদের তৈলাক্ত ত্বক তারা যদি দই এবং মধু মিশিয়ে মুখে লাগান তাহলেও তৈলাক্ত ত্বকের হাত থেকে রেহাই পাওয়া যায়।

দইতে প্রোটিন প্রচুর মাত্রা পাওয়া যায়। 200 গ্রাম দইতে প্রায় 12 গ্রাম প্রোটিন পাওয়া যায়। প্রোটিন সারাদিন আপনাকে এনার্জি প্রদান করবে। আপনার শরীর থেকে যত ক্যালরি বার্ন হবে ততটাই এনার্জি পূরণ হবে। এছাড়া খিদে নিয়ন্ত্রিত করার জন্য প্রোটিন পর্যাপ্ত মাত্রায় সেবন করা উচিত। এই প্রোটিনের জন্য দই খুবই গুরুত্বপূর্ণ। প্রোটিনের ব্যবহার করলে আপনার শরীরের ওজন নিয়ন্ত্রণে থাকবে।


হজম শক্তি বাড়াতে দই সেবন করুন / Curd benefits for digestive system :


কিছু প্রকার দইতে লাইফ ব্যাকটেরিয়া অথবা প্রোবায়োটিক পাওয়া যায় যা সেবন করলে পাচনতন্ত্রের স্বাস্থ্য ঠিক থাকে। কিন্তু দুর্ভাগ্যবশত কিছু দই পেস্টরাইজ্ড।
পেস্টরাইজ্ড প্রসেস এর সময় লাভকারী জীবানু নষ্ট হয়।
দইতে পাওয়া যায় এমন প্রোবায়োটিক যেমন বিফিডোব্যাক্টেরিয়া এবং ল্যাকটোব্যাসিলাস ইরিটেবল বাউয়েল সিনড্রম-এর লক্ষণ কম করতে সাহায্য করে। একটি গবেষণায় দেখা গেছে যে ইরিটেবল বাওয়েল সিনড্রোম এর রোগী যদি ফারমেন্টেড দুধ বা দই পান করে তাহলে তার সমস্যা থেকে মুক্তি পায়।
অন্য একটি গবেষণায় দেখা গেছে যে বিফিডোব্যাকটেরিয়া যুক্ত দই সেবন করলে পাচনতন্ত্রের সমস্যা বহুলাংশে কম করা যায়।


দই সেবন করলে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি পায় / Curd benefits for immunity power :


দুই সেবন করলে ইমিউনিটি র পক্ষে যথেষ্ট লাভ পাওয়া যায়। বিশেষ করে যদি এতে প্রোবায়োটিক থাকে। এই জন্য নিয়মিত ভাবে দই আপনার প্রতিরক্ষা প্রণালী কে মজবুত করে। এর ফলে আপনি বারবার রোগে আক্রান্ত হবার সম্ভাবনা অনেক অনেক কমে যায়। প্রোবায়োটিক মেডিসিন প্রদাহ কম করার জন্য গণ্য করা হয়, যেটা ভাইরাল ইনফেকশন থেকে শুরু করে অন্ত্রের সমস্যা সমাধান করতে ব্যবহার করা হয়। এছাড়াও দইতে ম্যাগনেসিয়াম সেলেনিয়াম এবং জিংক প্রচুর মাত্রায় পাওয়া যায়। যা ইমিউনিটি মজবুত করতে সাহায্য করে।


দই এর বিশেষ কিছু উপকারিতা / Curd benefits :


দই নিয়মিত সেবন করলে পেটের রোগ এবং অন্ত্রের সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। দইতে উপস্থিত ক্যালসিয়াম হাড় দাঁত এবং নখ মজবুত করে। আমাদের খিদে বাড়াতে সাহায্য করে। পাতলা পায়খানা সারাতে সাহায্য করে। এছাড়া মুখে ব্রণ এবং ফুসকুড়ি সারাতে দই সাহায্য করে। এমন অনেক মানুষ আছেন যাদের বদহজমের সমস্যা হয়। এই অবস্থায় তারা আহারের সাথে যদি দই সেবন করেন তাহলে তার হজমশক্তির ধীরে ধীরে উন্নতি ঘটবে। যেসব মানুষদের ঘুম না হওয়ার সমস্যা হয়, দই সেবন করলে তাদের ঘুমের সমস্যা দূর হয়। যাদের শরীরে অতিরিক্ত ঘাম এবং ঘামের দুর্গন্ধ জনিত সমস্যা হয় তারা দইয়ের শরবত পান করলে উপকার পাবেন।


দইয়ের অপকারিতা / Curd side effects in Bengali :



ল্যাকটোজ অসহিষ্ণুতা (lactose intolerance) :


1) ল্যাকটোজ অসহিষ্ণুতা তখন হয় যখন শরীরে ল্যাক্টোজ এর ঘাটতি থাকে এনজাইম ল্যাকটোজ কে হজম করতে সাহায্য করে। ল্যাকটোজ এক প্রকার চিনি যেটা দুধে পাওয়া যায়। কিছু মানুষের দুধ বা দুগ্ধজাত দ্রব্য সেবন করার ফলে পেটে ব্যথা এবং পাতলা পায়খানার মত পাচনতন্ত্রের সমস্যা সৃষ্টি হয়।

2) দুধ এবং দুগ্ধজাত দ্রব্যে কেসিন পাওয়া যায়, যা একপ্রকার প্রোটিন। যেটা সেবন করলে কিছু মানুষের অ্যালার্জির সমস্যা হতে পারে, যার কারণে আপনার শরীরে প্রদাহ বা চুলকানির মত সমস্যা হতে পারে। এইজন্য যদি আপনার দুধ থেকে অ্যালার্জি হয় তাহলে আপনার দই সেবন করা থেকে বিরত থাকা ভালো।Compose email
আপনি যদি দই খান, তাহলে দই খেলে শরীরের কি লাভ হয় ও কি ক্ষতি হয় জেনে নিন / Curd benefits in Bengali | Ayurvedic-Care | আপনি যদি দই খান, তাহলে দই খেলে শরীরের কি লাভ হয় ও কি ক্ষতি হয় জেনে নিন / Curd benefits in Bengali | Ayurvedic-Care | Reviewed by Ayurvedic-Care on September 27, 2019 Rating: 5

No comments:

Please do not enter any spam link in the comment box.

Powered by Blogger.