ছোলা খাওয়ার 10 টি উপকারিতা / Health benefits of chickpeas in bengali | Ayurvedic-Care |

ছোলা খাওয়ার 10 টি উপকারিতা / Health benefits of chickpeas in bengali 

Chickpeas Chickpeas


ছোলা ভেষজ ঔষধি গুণে ভরপুর একটি খাদ্য পদার্থ। এই কারণে সকালে খালি পেটে জলে ভেজানো কাঁচা ছোলা খাওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়। এছাড়া অঙ্কুরিত ছোলার অধিক পুষ্টিগুণের প্রমাণ পাওয়া গেছে। সুতরাং আপনি রোজ সকালে কাঁচা ছোলা এবং গুড় একসাথে খেতে পারেন, এইভাবে ছোলা সেবন করার উৎকৃষ্ট উপায়। আর আপনি যদি এভাবে ছোলা খেতে না পারেন তাহলে অবশ্যই ভাজা ছোলা প্রতিদিন এক দু' মুঠো খেতে পারেন, এতেও যথেষ্ট উপকার পাওয়া যায়।

ছোলার প্রকারভেদ / Types of chickpeas in Bengali -


সাধারণত ছোলা দুই প্রকারের পাওয়া যায় -

দেশী ছোলা - দেশী ছোলা ছোট আকারের হয়, আর এটা বাদামি বা তামাটে রঙের হয়।

কাবুলি ছোলা - দেশী ছোলার তুলনায় কাবুলি ছোলা আকারে অনেকটা বড় হয়। এই ছোলার রং হালকা সাদাটে ও ধূসর রঙের হতে পারে।

ছোলার উপকারিতা / Benefits of chickpeas in Bengali -


ছোলা যেমন শরীরকে প্রভূত পুষ্টি প্রদান করতে পারে, ঠিক তেমনি ছোলা সেবন করার মাধ্যমে আমরা নানা রকম রোগব্যাধির আক্রমণ থেকে সুরক্ষিত থাকতে পারি। এমনকি ব্লাড সুগার ও ক্যান্সারের মত গম্ভীর রোগ হওয়ার আশঙ্কা থেকে দূরে থাকা সম্ভব। নিচে ছোলার উপকারিতা নিয়ে আলোচনা করা হল -

(1) হজম শক্তি / digestive system -

আমাদের পৌষ্টিকতন্ত্রের জন্য ছোলা অত্যন্ত উপকারী। ছোলার মধ্যে ফাইবার অধিকমাত্রায় পাওয়া যায়, এই কারণে ছোলা পেট সম্বন্ধীয় নানারকম সমস্যা যেমন গ্যাস কোষ্ঠকাঠিন্য ডায়রিয়া বা পাতলা পায়খানার সমস্যা ঠিক করতে সাহায্য করে এবং হজম শক্তি বাড়াতে সক্ষম। একটি রিপোর্ট অনুসারে বলা যায় যে ফাইবার আসলে কোষ্ঠকাঠিন্যের মতো পরিস্থিতি দূর করতে সক্ষম, এর সাথে সাথে কোলন ক্যান্সারের ঝুঁকি কমাতে পারে। সুতরাং আপনার হজম শক্তি বৃদ্ধি করতে এবং ডাইজেস্টিভ সিস্টেম ঠিক রাখার জন্য প্রতিদিন সকালে ভেজানো কাঁচা ছোলা গুড় সহযোগে সেবন করতে পারেন।

(2) ব্লাড সুগার / blood sugar -

শরীরের রক্ত শর্করা নিয়ন্ত্রণ করতে ছোলার বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে। একটি গবেষণায় প্রমাণ হয়েছে যে ছোলা শরীরের অতিরিক্ত ব্লাড সুগারের স্তর কম করতে সাহায্য করে। ছোলার মধ্যে লো গ্লাইসেমিক ইনডেক্স, ফাইবার এবং প্রোটিন এর মত পুষ্টিগুণ পাওয়া যায়।

(3) শরীরের ওজন স্থূলতা কম করার জন্য Reduce obesity in Bengali -

যারা অতিরিক্ত মোটা বা স্থূলতা আক্রান্ত, তাদের জন্য ছোলা খুবই উপকারী। যেমন আগে বলা হয়েছে যে ছোলা মধ্যে গ্লাইসেমিক ইনডেক্স খুবই কম, যার ফলে এটা পরোক্ষভাবে আপনার শরীরের স্থূলতা ও চর্বি কম করতে সাহায্য করে। এছাড়া ছোলার মধ্যে উপস্থিত রয়েছে প্রচুর ফাইবার, যেটা অতিরিক্ত স্থূলতা নিয়ন্ত্রণ করতে সাহায্য করে। সুতরাং শরীরের ওজন কম করার জন্য প্রতিদিন অন্তত দুবার দুমুঠো কাঁচা ছোলা খাওয়ার অভ্যাস গড়ে তুলুন।

(4) হার্ট ঠিক রাখে এবং কোলেস্টেরল কম করে / Chickpeas benefits for heart in Bengali -


হার্টের জন্য ছোলা খুবই উপকারী। ছোলার মধ্যে পটাশিয়াম, ফাইবার এবং ভিটামিন সি, ভিটামিন বি 6 ইত্যাদি প্রচুর মাত্রায় পাওয়া যায়। এই ছোলা আসলে কোলেস্টেরল কম করতে সাহায্য করে, এর ফলে আপনার হার্টের রোগ হওয়ার সম্ভাবনা অনেকটা কমে যায়। একটি গবেষণা থেকে জানা গেছে যে ছোলার মধ্যে উপস্থিত দ্রবণীয় ফাইবার এবং পটাশিয়াম হার্টের রোগ আটকাতে সক্ষম।

(5) ক্যান্সার / chickpeas prevent cancer in bengali


ছোলা সেবন করলে শরীরে ক্যান্সার সৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা অনেকটা কমে যায়। একটি গবেষণা থেকে জানা গেছে যে ছোলার মধ্যে বিউটিরেট নামক ফ্যাটি এসিড পাওয়া যায়, যেটা শরীরের সেল প্রোলিফেরেশন প্রতিরোধ করতে সক্ষম। এর ফলে ক্যানসারাস টিউমার সৃষ্টি হওয়ার আশঙ্কা কমে যায়।

এছাড়াও ছোলাতে উপস্থিত লাইকোপিন, বায়োইকনিন এ, এবং সেপোনিন্স এর মতন বায়ো একটিভ কম্পাউন্ড ক্যান্সারের ঝুঁকি কমাতে সাহায্য করে।

(6) চোখের জন্য উপকারী ছোলা / chickpeas benefits for eyes in bengali -


চোখ সুস্থ রাখার জন্য ছোলা একটি গুরুত্বপূর্ণ খাদ্যবস্তু। ছোলার মধ্যে বিটা ক্যারোটিন নামক জৈব রাসায়নিক পাওয়া যায়, যেটা চোখের জন্য খুবই উপকারী। ইজ রিলেটেড আই ডিজিজ স্টাডি অনুসারে জানা যায় যে বিটা ক্যারোটিন এএমডি অর্থাৎ দৃষ্টিশক্তি কমে যাওয়ার সমস্যা প্রতিরোধ করতে পারে। এছাড়া ছোলার মধ্যে ভিটামিন সি পাওয়া যায় যা কিনা আপনার চোখ ঠিক রাখতে সাহায্য করে।

(7) অ্যানিমিয়া, রক্তাল্পতা / chickpeas benefits for anaemia in bengali -


ছোলার চমৎকার পুষ্টিগুণ অ্যানিমিয়া বা রক্তাল্পতার মতো রক্ত সমস্যার সমাধান করতে সাহায্য করে, রক্তের ঘাটতি সাধারণত মহিলাদের শরীরে খুব বেশি লক্ষ্য করা যায়। এই সমস্যা শরীরের লাল রক্তকণিকার উৎপাদনে বাধা সৃষ্টি করে। এনিমিয়া সৃষ্টির সবচেয়ে বড় কারণ হলো শরীরে আয়রনের ঘাটতি হওয়া। ছোলার মধ্যে প্রচুর পরিমাণে আয়রন পাওয়া যায়। এই কারণে যারা অ্যানিমিয়া আক্রান্ত তাদের জন্য নিয়মিত ছোলা সেবন করা খুবই উপকারী। এছাড়া সাধারণভাবে যারা নিয়মিত ছোলা সেবন করেন তাদের এনিমিয়া বা রক্তাল্পতা রোগে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা কমে যায়।

(8) মজবুত হাড় / chickpeas benefits for strong bones in bengali -


হাড়ের জন্য উপকারী হলো দেশী ছোলা ও কাবুলী ছোলা। এতে প্রচুর মাত্রায় ক্যালসিয়াম পাওয়া যায় এবং ক্যালসিয়াম হাড়ের জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ খাদ্য উপাদান। এটা আপনার অস্থি সুস্থ ও মজবুত বানাতে সাহায্য করে। শরীরে সাধারণভাবে ক্যালসিয়াম তৈরি হয় না, এই কারণে ক্যালসিয়ামের ঘাটতি পূরণ করার জন্য ক্যালসিয়াম যুক্ত খাদ্য সেবন করতে হয়। সুতরাং ক্যালসিয়াম সমৃদ্ধ খাদ্য হিসাবে প্রতিদিন জলে ভেজানো কাঁচা ছোলা এবং গুড় একসাথে সেবন করা উচিত।

(9) মহিলাদের হরমোন নিয়ন্ত্রণ / chickpeas benefits for female hormones -


মহিলাদের শরীর স্বাস্থ্যের জন্য ছোলা খুবই উপকারী। ছোলার মধ্যে প্রচুর অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট পাওয়া যায়, যা মহিলাদের রজঃনিবৃত্তির পরে খারাপ লক্ষণ দূর করতে সাহায্য করে। একটি গবেষণায় প্রমাণ পাওয়া গেছে যে ছোলা তার এস্ট্রোজেনিক গুণের কারণে রজঃনিবৃত্তির লক্ষণ এবং অস্টিওপোরোসিসের সমস্যা দূর করতে সাহায্য করে।

(10) গর্ভবতী মায়ের জন্য উপকারী ছোলা / Chickpeas benefits for pregnant women in Bengali -


গর্ভবতী মহিলাদের জন্য কাবুলি ছোলা খুবই উপকারী। এর সবচেয়ে বড় কারণ হলো ছোলার মধ্যে প্রচুর মাত্রায় ফোলেট পাওয়া যায়। এটা হল একটি আবশ্যকীয় ভিটামিন-বি, যেটা মা এবং ভ্রূণের বিকাশ করতে সাহায্য করে। গর্ভাবস্থার শুরুতে এবং গর্ভাবস্থার সময়ে পর্যাপ্ত মাত্রায় ফলিক অ্যাসিড শিশুর মস্তিষ্ক এবং মেরুদন্ডের সাথে সম্পর্কিত সমস্যা ঠিক করতে সাহায্য করে।
এছাড়া ছোলার মধ্যে আয়রন প্রোটিন জিংক এবং ক্যালসিয়াম এর মত গুরুত্বপূর্ণ পুষ্টি উপাদান পাওয়া যায়। এর ফলে গর্ভাবস্থার সময়ে ভ্রূণকে উপযুক্ত পুষ্টি প্রদান করতে সক্ষম। এর ফলে মা সুস্থ সবল শিশুর জন্মদান করতে সক্ষম হন।
ছোলা খাওয়ার 10 টি উপকারিতা / Health benefits of chickpeas in bengali | Ayurvedic-Care | ছোলা খাওয়ার 10 টি উপকারিতা / Health benefits of chickpeas in bengali | Ayurvedic-Care | Reviewed by Ayurvedic-Care on November 02, 2019 Rating: 5

No comments:

Please do not enter any spam link in the comment box.

Powered by Blogger.